রহস্যজনক ফলাফল বিপর্যয় ঘটায় পুনর্মূল্যায়নের দাবিতে রাজধানীর নীলক্ষেতে আবারো আন্দোলনে নেমেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা।

রোববার সকাল ১০টা থেকে কয়েক শ’ শিক্ষার্থী নীলক্ষেত থেকে সাইন্সল্যাব এলাকায় দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল করে নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান শুরু করেছেন।

এ সময় সতর্ক অবস্থানে থাকতে দেখা গেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা জানান, অনার্স ২০১৫-১৬ সেশন ফলাফল বিপর্যয়, ২০১৬-১৭ সেশনের ফলাফল এবং মাস্টার্স ২০১৬-১৭ সেশনের ফলাফল বৈষম্যের প্রতিবাদ এবং খাতা পুনর্মূল্যায়নসহ পাঁচ দফা দাবি নিয়ে তারা আন্দোলন করছেন।

শিক্ষার্থীদের দাবির মধ্যে রয়েছে, ৮০ শতাংশ অকৃতকার্য শিক্ষার্থীর খাতা সঠিক মূল্যায়ন করতে হবে। অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের জন্য ১০ দিনের মধ্যে বিশেষ পরীক্ষার নোটিশ প্রদান করতে হবে। সকল বিভাগের ফলাফল ৯০ দিনের ভেতর প্রকাশ করতে হবে। আটকে থাকা বিষয়গুলোর ফলাফল আগামী ৭ দিনের ভেতর প্রকাশ করতে হবে। সকল ডিপার্টমেন্টের ফলাফল দ্রুততম সময়ে সমন্বয় করতে হবে।

আন্দোলনের ব্যাপারে শিক্ষার্থী বেলায়েত হোসেন বলেন, আমরা দেখেছি স্নাতক চতুর্থ বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষায় মার্কেটিং বিভাগে ‘বাংলাদেশ ও অর্থনীতি’ বিষয়ে গণহারে অকৃতকার্য ও ইংরেজি বিভাগ, ব্যাংকিং এবং ফিন্যান্স বিভাগেও নির্দিষ্ট একটা বিষয়ে গণহারে ফেল দেখায় শিক্ষার্থীদের।

দর্শন বিভাগের ছাত্র আসিফ বলেন, ভাইবায় আমাদের বৃহৎ সংখ্যক শিক্ষার্থীকে ফেল করানো হয়েছে। আমাকেও করানো হয়েছে। করোনার এই দুঃসময়ে একটি বিষয়ের জন্য আমাকে ফের ১ বছর ঝুলে থাকতে হবে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *